সাম্প্রতিক পোস্ট শিরোনাম

সাম্প্রতিক পোস্ট

নারী যখন ফেছবুকে .........।

02 Sep  Tags:  প্রবন্ধ

 

........তাদের জন্যে যারা আখেরাতে বিশ্বাসী-

 

ইসলামই একমাত্র ধর্ম যেখানে অশ্লীলতা ও বেহায়াপনার কোন স্থান নেই। ইসলাম ধর্মে রয়েছে কঠোর পর্দার ব্যবস্থা, আর এপর্দাই হচ্ছে, অশ্লীলতা ও বেহায়াপনা রোধের একমাত্র হাতিয়ার। মহান আল্লাহ পাক এই “ঐশী পবিত্র বিধান” দ্বারা ইসলাম কে করে তুলেছেন অনন্য, আর এর মাধ্যমে তিনি নারীদের দিয়েছেন সীমাহীন মান-মর্যাদা।

১)পর্দার বিধান যেখানেই লঙ্ঘিত, সেখানে অবাধে প্রবেশ করে অশ্লীলতা ও বেহায়াপনা; আর এ হাতীয়ার দ্বারাই শয়তান মানুষকে

কাবু করে ফেলে, করে তুলে চরিত্রহীন। ফলে মানুষ আস্তে আস্তে হয়ে উঠে আল্লাহ পাকের অবাধ্য। তাই আল্লাহ পাক পর্দার মাধ্যমে অশ্লীলতা, বেহায়া ও নগ্নতার দার চিরতরে বন্ধ করে দিয়েছেন।

২)অশ্লীলতা, নগ্নতা ও বেহায়াপনা সাধারণত নারীদের  মাধ্যমেই প্রচার-প্রসার ঘটে থাকে, তাই নারীকে আল্লাহ পাক পর্দায় থাকার আদেশ

দিয়েছেন।এ ব্যাপারে পবিত্র কোরআন মাজীদে সাতটি জলন্ত আয়াত ও হাদীস গ্রন্থে প্রায় আশি খানা সহীহ হাদীস রয়েছে।

৩)মহান আল্লাহ পাক নারীর ইজ্জত ও আবরুর প্রতি এতটাই গুরুত্ব দিয়েছেন যে, তাদের আওয়াজ পর্যন্ত পর্দার অধীনে করে দিয়েছেন,

     এমনকি নারীর ছায়া পর্যন্ত দেখার অনুমতি ...

Comments : 0  |  Cotinue reading

 


যৌবনে মানুষ ও পশু

01 Sep  Tags:  প্রবন্ধ

  মানুষ সৃষ্টির শ্রেষ্ঠ কথাটির মর্ম আমাদের অনেকেরই অজানা। তাই এ বিষয়ে আমাদের পরিস্কার একটা ধারণা থাকা চাই। মানুষ হিসাবে সকল বনী আদমই সৃষ্টির শ্রেষ্ঠ হওয়ার দাবীদার। মহান আল্লাহ পাক সকল মানুষকে সকল সৃষ্টিকুলের মধ্যে সুন্দরতর অবয়বে সৃষ্টি করেছেন। আল্লামা ইবনে আরাবী বলেন:আল্লাহর সৃষ্ট বস্তুর  মধ্যে  মানুষ অপেক্ষা  সুন্দর  কেউ নেই। কেননা, আল্লাাহ তালা তাকে জ্ঞানী, শক্তিবান, বক্তা, শ্রোতা, দ্রষ্টা, কুশলী এবং প্রজ্ঞাবান  করেছেন। এগুণাবলীগুলো আমরা আর কোন সৃষ্ট মাখলুকের মধ্যে লক্ষ্য করি না। তাই মানুষ নিজ গুণাবলীতে সতন্ত্র। যেমন, মানুষের অবয়বকে আল্লাহ পাক সুন্দর করেছেন পোষাকের মাধ্যমে। সৃষ্ট জীবের মধ্যে শুধু মানুষই একমাত্র প্রাণী যাদের কে মহান আল্লাহ পাক নিজেদের লজ্জাস্থান ঢেকে রাখার ক্ষমতা দান করেছেন এবং এর মাধ্যমে আল্লাহ পাক মানুষকে করেছেন সম্মানী । সৃষ্টজীবের মধ্যে মানুষই একমাত্র প্রাণী যারা নিজেদের লজ্জাস্থান আবৃত করতে জানে, এর মাধ্যমে আল্লাহ পাক মানুষকে করেছেন সম্মানী । আল্লাহ পাক মানুষকে যে দুইখানা হাত দিয়েছেন এর দ্বারা সে যাবতীয় কর্মকান্ড সুশৃংখল ভাবে পরিচালিত ...

Comments : 0  |  Cotinue reading

 


ইসলামী বিচার-ব্যবস্থা- হুদুদ ,কেসাস ও দণ্ডবিধি

01 Sep  Tags:  প্রবন্ধ

আপরাধের সাজা ও শাস্তিকেই আমরা দণ্ডবিধি বলি। মৃত্যদণ্ড থেকে শুরু করে জেল-জরিমানা যত প্রকার সাজা আছে আমরা ঢালাওভাবে সবগুলোকেই দণ্ডবিধি বলে থাকি। আসলে আপরাধ সম্পর্কিত সবশাস্তিকে দণ্ডবিধি বলে অভিহিত করা কুরআন-সুন্নার শিক্ষা নয়। একজন মুসলমানের এব্যাপারে কতটুকু জ্ঞান রাখা দরকার; আসুন একটু জেনে নেই।

ইসলামী শরীয়তে অপরাধের শাস্তিকে তিন ভাগে ভাগ করা হয়েছে।

 (ক) হুদুদ

(খ) কেসাস

(গ) তাযীরাত অর্থাৎ, দণ্ডবিধি।

 আপরাধের দ্বারা পৃথিবীতে অশান্তি সৃষ্টি হয়, মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়  এবং আল্লাহর নাফরমানী হয়। সব রকম অপরাধের সাথেই হক্কুল্লাহ ( আল্লাহর হক) এবং হক্কুল এবাদ ( বান্দার হক) উভয়টিই বিদ্যমান থাকে। কিন্ত কোন কোন অপারাধে আল্লাহ হক আবার কোন কোন অপরাধে বান্দার হক প্রবল থাকে এবং এ প্রাবল্যের উপর ভিত্তি করেই ইসলামী শরীয়তে বিধি-বিধান রচিত হয়েছে।

 (১) যে সমস্ত আপরাধে আল্লাহর হকের পরিমাণ প্রবল ধরা হয়েছে, সেগুলোর শাস্তিকে শরীয়তের পরিভাষায় এক বচনে হদ আর বহুবচনে হুদুদ বলা হয়। হুদুদ মাত্র পাঁচটি

(১) ডাকাতির শাস্তি।

(২) চুরির শাস্তি।

(৩) ব্যভিচার বা যিনার শাস্তি।

(৪) ব্যভিচারের আপবাদের শাস্তি।

(৫)  মদ্যপানের শাস্তি।

* ডাকাতির শাস্তি।

(ক) ...

Comments : 0  |  Cotinue reading

 


কোরবানির পশুর হাড়গোড় খুর শিং সবই মূল্যবান

17 Aug  Tags:  প্রবন্ধ

হাজারীবাগের ঠিক শেষ প্রান্তে মোহাম্মদপুর বেড়িবাঁধের কাছাকাছি কয়েকটি টিনের ঘর। এর ভেতরে ড্রামে ড্রামে কি যেন নাড়াচাড়া করা হচ্ছে। কাছেই গিয়ে জানা গেল, এগুলো হচ্ছে গরুর চর্বি। আগুনে এসব চর্বি গলিয়ে বিশাল ড্রামে ভরা হচ্ছে। হাসি দিয়ে সেখানে এক যুবক বলল, বাংলা সাবান (কাপড় কাঁচা) থেকে শুরু করে চকলেটেও দেয়া হয় এসব চর্বি। নামমাত্র মূল্যে কেনা এসব চর্বি চড়া দামে বড় বড় কোম্পানি কিনে নিয়ে যায় ।

এ দিকে একই ঘরের পাশে রয়েছে গবাদি পশুর হাড়গোড়, খুর, শিংয়ের বিশাল স্তূপ। জানতে চাইলে সেই যুবকই জানাল, আরে ভাই পশুর হাড়গোড়, খুর, শিং কোনো কিছুই ফেলনা না। এগুলোও মেলা দামি। বিদেশে রফতানি হয়। দেশেও হাজার হাজার মানুষ এসব বিক্রি করে জীবনযাপন করছে।

1.কোরবানির পশুর হাড়গোড় খুর শিং সবই মূল্যবান

http://old.dailynayadiganta.com/detail/news/153853

2.কোরবানির পশুর হাড়-চর্বির জমজমাট ব্যবসা

https://www.dailyinqilab.com/article/38626/%E0%A6%95%E0%A7%8B%E0%A6%B0%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A6%B6%E0%A7%81%E0%A6%B0-%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A7%9C-%E0%A6%9A%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%B0-%E0%A6%9C%E0%A6%AE%E0%A6%9C%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%9F-%E0%A6%AC%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%AC%E0%A6%B8%E0%A6%BE

3.কোরবানির পশুর উচ্ছিষ্ট ২০০ কোটি টাকা রপ্তানি আয়ের সম্ভাবনা

https://www.bdsuccess.org/2017/09/10/15/25/22068

4.পশুর উচ্ছিষ্ট থেকে কোটি টাকা

http://www.bhorerkagoj.net/online/2015/09/29/123799.php

5.কোরবানির পশুর উচ্ছিষ্ট রপ্তানিতে হাজার কোটি টাকা

http://www.arthosuchak.com/archives/109987/%E0%A6%95%E0%A7%8B%E0%A6%B0%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A7%80%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A6%B6%E0%A7%81%E0%A6%B0-%E0%A6%89%E0%A6%9A%E0%A7%8D%E0%A6%9B%E0%A6%BF%E0%A6%B7%E0%A7%8D%E0%A6%9F-%E0%A6%B0/

 

...

Comments : 0  |  Cotinue reading

 


মুসলমান, মুমিন ও মুহসিন!

14 Aug  Tags:  প্রবন্ধ

সাধারণভাবে আমরা উল্লিখিত তিনটির মাঝে কোন প্রকার পার্থক্য ছাড়াই  ব্যবহার করে থাকি। উপরন্তু উলামায়ে কেরাম তিনটির মাঝে কিছু পার্থক্যের বর্ণনা দিয়েছেন যা নিম্নে তুলে ধরা হলো।

 মুসলমান: আল্লাহ তাআলার উপর ঈমান ও রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি  ও সাল্লামের রেসালতের উপর বিশ্বাস স্থাপন করতঃ বাহ্যিক আমলসমূহ (যেমন নামজ, রোজা, হজ্ব, যাকাত) যারা করেন তাদের মুসলমান বলা হয়।

মুমিন: উল্লিখিত গুণগুলোর সাথে সাথে আরো কিছু বিষয় যোগ হবে।  যেমন:

(ক) ফেরেশতাদের উপর ঈমান আনা।

(খ) মহান আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে নাযিলকৃত কিতাবসমূহের  প্রতি ঈমান আনা

(গ) মহান আল্লাহ তাআলা মানব জাতির হেদায়েতের জন্য যত নবী-রসূলদের দুনিয়ায় পাঠিয়েছেন তাদের উপর ঈমান আনা।

(ঘ) আখেরাতের উপর ঈমান আনা।

(ঙ) তাকদীরের ভালো-মন্দ মহান আল্লাহ তাআলার পক্ষ হতে হয়, এর উপর ঈমান আনা।

(চ) এবং মরণের পর পুনরুত্থানের(মানুষ মারা যাবার পর কিয়ামতের দিন পুনরায় জীবন লাভ করাকে বুঝায়) উপর ঈমান আনা। সার কথা বাহ্যিক  আমলগত দিকটাকে ইসলাম বলে, আর ভিতরের অর্ন্তরগত বিশ্বাসটাকে ঈমান বলে। তবে এখানে আমাদের একটা মৌলিক কথা স্মরণ রাখা দরকার তা হচ্ছে, ...

Comments : 0  |  Cotinue reading